মঙ্গলবার , ২৫ মে ২০২১ | ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. অলৌকিক
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আবহাওয়া
  6. আলোচিত
  7. কবিতা
  8. করোনাভাইরাস আপডেট
  9. ক্যাম্পাস
  10. খেলাধুলা
  11. গনমাধ্যম
  12. চাকুরী
  13. জাতীয়
  14. ধর্ম
  15. নারী ও শিশু

পাবনা ঈশ্বরদী কামালপুর মধ্যপাড়ায়  গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার।

প্রতিবেদক
এইচ এম ওবায়দুল হক
মে ২৫, ২০২১ ৩:৪৪ অপরাহ্ণ

জাহিদুল ইসলাম নিক্কন: পাবনা ঈশ্বরদী উপজেলার লক্ষীকুন্ডা ইউনিয়নের কামালপুর মধ্যপাড়া এলাকা থেকে  গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।গৃহবধূর নাম নাসরিন খাতুন (২০), নাসরিন লক্ষীকুন্ডা ইউনিয়নের কামালপুর মধ্যপাড়ার বাসিন্দা রুহুল আমিনের স্ত্রী। আনুমানিক ৩ বছর পূর্বে পাবনা সদর সদর থানা এলাকার মাধপুর গ্রামের নাসির সর্দারের মেয়ে নাসরিনকে বিয়ে করেন।গৃহবধু নাসরিনের মৃত্যুর পর থেকে স্বামী রুহুল পলাতক আছেন ।

গৃহবধূ নাসরিনের বাবার বাড়ির লোকজনের অভিযোগ, তাঁকে হত্যা করে ঘরের সিলিং ফ্যানে লাশ ঝুলিয়ে রেখেছেন তাঁর স্বামী।পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ২৪শে মে সোমবার দুপুরে রুহুলের পরিবারের সদস্যরা নাসরিনের বাড়িতে ফোন করে বলেন, আপনাদের মেয়ে নাসরিন ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এমন খবর পেয়ে নাসরিনের পরিবারের লোকজন এসে ঝুলন্ত অবস্থায় লাশ দেখতে পান। পরে পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে।

নাসরিনের পরিবারের লোকের অভিযোগ, যৌতুকের টাকার জন্য প্রায়ই মেয়েকে চাপ দিতেন রুহুল। আজ তাঁদের মেয়েকে মেরে ঘরে ঝুলিয়ে রেখেছে। নাসরিন আত্মহত্যা করেনি নাসরিনকে হত্যা করা হয়েছে। অভিযুক্ত রুহুল আমিনের মুঠোফোন বন্ধ থাকায় তাঁর সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি। এ ঘটনার পর থেকেই নাসরিনের স্বামী রুহুল পলাতক আছেন।ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে এবং ঈশ্বরদী থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

সর্বশেষ - ঢাকা বিভাগ

Design and Developed by BY AKATONMOY HOST BD