জাহিদ মাহমুদঃ মেহেরপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নার্সের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে।সোমবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের তৃতীয় তলায় শিশু ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। পরিবারের লোকজনের অভিযোগ নার্সদের অবহেলার কারণেই শিশুটির মৃত‍্যু হয়েছে।
ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, সোমবার বিকেল সড়ে ৪ টার দিকে মেহেরপুর মায়ের হাসি ক্লিনিকে বৃষ্টি ও হ্যাপি দম্পতির একটি পুত্র সন্তান জন্ম গ্রহণ করে।
শিশুটি অসুস্থ থাকায়, নবজাতক শিশু ও কিশোর বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ওবায়দুল ইসলাম পলাশকে দেখানো হলে, তিনি মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করার পরামর্শ দেন। পরে বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে হাসপাতালে ভর্তি করলে, নবজাতকটি আরো বেশি অসুস্থ হয়ে পড়ে।
এসময় ডিউটিরত নার্সদের কাছে গেলে বিষয়টি এড়িয়ে যান, এবং মোবাইলে মগ্ন হন। রাত আনুমানিক সাড়ে ৮ টার দিকে নবজাতকের মৃত্যু হয়।
শিশুর নানা হাসান বলেন, আমরা নার্সের কাছে গেলে ওনারা বিষয়টি অবহেলা করে এবং ইন্টারনেটে মগ্ন ছিলেন, মোবাইল টিপায় ব্যস্ত ছিলেন।
তিনি আরো বলেন, নার্সদের কাছে আকুতি মিনতি করলে তারা বলেন বাচ্চা কি শুধু আপনাদেরই হয়েছে না আরো অনেক বাচ্চা আছে হাসপাতালে।
জানা গেছে এ সময় নাজমিন নাহার ও জান্নাতুল নাঈম নামের দুজন নার্স ডিউটিরত ছিলেন।
এ ঘটনায় হাসপাতালে উত্তেজনার সৃষ্টি হলে মেহেরপুর সদর থানা পুলিশের একটি দল পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে
মন্তব্য করুণ